Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ঋষি সুনাকের শাশুড়ি সুধা মূর্তি রাজ্যসভার সদস্য মনোনীত




শিক্ষাবিদ ও লেখক সুধা মূর্তিকে ভারতের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার সাংসদ পদে মনোনীত হয়েছে। তিনি ভারতীয় বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ী ও তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিসের প্রতিষ্ঠাতা এন আর নারায়ণ মূর্তির স্ত্রী ও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের শাশুড়ি। সুধা মূর্তি ভারতীয় বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ী ও তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিসের প্রতিষ্ঠাতা এন আর নারায়ণ মূর্তির স্ত্রী ও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের শাশুড়ি। ছবি: সংগৃহীত শুক্রবার (৮ মার্চ) আন্তর্জাতিক নারী দিবসে সুধা মূর্তিকে রাজ্যসভার সাংসদ পদে মনোনীত করেন ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মূর্মূ। এরই মধ্যে সুধা মূর্তিকে অভিবাদন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এক বার্তায় তিনি বলেছেন, সংসদের উচ্চকক্ষে সুধা মূর্তির উপস্থিতি আমাদের ‘নারী শক্তি’র ক্ষেত্রে শক্তিশালী পদক্ষেপ। সাংসদ হিসাবে তার সময়কালের জন্য অভিনন্দন জানাই। ১৯৫০ সালে ১৯ অগস্ট কর্নাটকে জন্মগ্রহণ করেন সুধা। নারায়ণ মূর্তির স্ত্রী তার কর্মজীবন শুরু করেছিলেন ‘টাটা ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড লোকোমোটিভ কোম্পানি’তে। বেঙ্গালুরুর এক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষিকা হিসাবেও কাজ করেছেন সুধা। কন্নড়, মারাঠি, ইংরেজিসহ বিভিন্ন ভাষায় তার ৪০টির বেশিও বই রয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন সংবাদপত্রে বিভিন্ন সময়ে কলাম লিখেছেন তিনি। আরও পড়ুন: নারীর ‘ক্ষমতায়নে’ রান্নার গ্যাসের দাম কমালো ভারত! রাজ্যসভার সদস্য মনোনীত হওয়ার খবর পাওয়ার পর সুধা মূর্তি বলেছেন, 'কাজের জন্য আরও বৃহত্তর প্ল্যাটফর্ম পেলাম। আমি অত্যন্ত খুশি।' নারায়ণ মূর্তি ও সুধার দুই সন্তান। রোহন ও অক্ষতা। অক্ষতার স্বামী ঋষি সুনক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। আগেও সুধা মূর্তির রাজনীতিতে যোগদান নিয়ে একাধিকবার জল্পনা রটেছিল। এ নিয়ে তাকে একবার প্রশ্নও করা হয়েছিল- এতগুলো ভূমিকায় সফল হওয়ার পর কি তাকে রাজনীতিতে দেখা যেতে পারে? তার জবাব ছিল, আমি বর্তমানে যে ভূমিকায় রয়েছি, তা নিয়েই খুশি। যেমন আছি, তাতেই সুখী। কয়েকদিন আগেই নয়াদিল্লিতে নয়া সংসদ ভবনে যেতে দেখা যায় সুধা মূর্তিকে। তখন থেকেই নানা জল্পনা চলছিল। তবে এ প্রসঙ্গে তার জবাব ছিল, শুধুমাত্র সংসদ ভবন দেখার জন্যই এসেছিলেন তিনি। সুধা বলেন, নতুন সংসদ ভবন খুব সুন্দর। ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। আমি অনেকদিন ধরে এখানে আসতে চেয়েছিলাম। ঘুরে দেখতে চেয়েছিলাম। যেন স্বপ্ন সত্যি হলো। ভারতের সংস্কৃতি, শিল্পকলা, ইতিহাস, খুব সুন্দরভাবে এখানে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। সমস্তটাই খুব সুন্দর। সুধার মুখে নয়া সংসদ ভবন এবং মোদির প্রশংসা শুনে গুঞ্জন শুরু হয়, তবে কি শাসকদলের থেকে এ বছর পার্লামেন্টের টিকিট পেতে চলেছেন সুধা মূর্তি। তবে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটলো শুক্রবার রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর ঘোষণায়। আরও পড়ুন: ভারতে পানির নিচে প্রথম মেট্রো, উদ্বোধন করলেন মোদি সম্প্রতি সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত সুধা মূর্তি। ১৯৯৬ সালে তিনি ইনফোসিস ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠা করেন। এছাড়া গেটস ফাউন্ডেশনের সদস্য তিনি। কর্ণাটকে তিনি একাধিক অনাথাশ্রম খুলেছেন। এছাড়া এই রাজ্যের গ্রামে গ্রামে বহু উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে তিনি যুক্ত। সুধা মূর্তি ২০০৬ সালে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হন। আর ২০২৩ সালে তাকে পদ্মভূষণ সম্মানে ভূষিত করে মোদি সরকার।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply