sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » সুশান্তের মৃত্যুতে পুলিসের হাতে এল ভিসেরা রিপোর্ট, মিলল না কোনও বিষের সন্ধান




  সুশান্তের মৃত্যুতে পুলিসের হাতে এল ভিসেরা রিপোর্ট, মিলল না কোনও বিষের সন্ধান
 সুশান্তের শরীরে কোনও সন্দেহজনক রাসায়নিক পদার্থ বা বিষাক্ত কিছু পাওয়া যায়নি। বলছে ভিসেরা রিপোর্ট...
 অবশেষে হাতে এল সুশান্ত সিং রাজপুতের ভিসেরা রিপোর্ট। ময়নাতদন্তের পর ভিসেরা রিপোর্টেও সন্দেহজনক কিছু মিলল না। ভিসেরা রিপোর্টে বলা হয়েছে, সুশান্তের শরীরে কোনও সন্দেহজনক রাসায়নিক পদার্থ বা বিষাক্ত কিছু পাওয়া যায়নি।

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যা নিয়ে অনেকেই সন্দেহ প্রকাশ করেন। অভিনেতাকে খুন করা হয়ে থাকতে পারে বলে দাবি করেন বহু মানুষ। যদিও প্রথম থেকেই সুশান্তের মৃত্যু 'আত্মহত্যা' বলেই জানিয়েছিল পুলিস। এরপর গত সপ্তাহে পুলিসের হাতে আসে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট। সেই রিপোর্টে সই করেছিলেন ৫জন চিকিৎসক। সেখানে বলা হয়েছিল, গলায় ফাঁসের কারণে শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে সুশান্তের। তাঁর শরীরে কোনও লড়াইয়ের চিহ্ন বা বাহ্যিক কোনও আঘাতের চিহ্ন ছিল না। তাঁর নখ পরিষ্কার ছিল। রিপোর্ট অনুযায়ী এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই জানায় পুলিস। অন্য কোনও কারণ এর পিছনে নেই। ময়নাতদন্তের পাশাপাশি ভিসেরা সংরক্ষণ করে তা রাসায়নিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। এবার ভিসেরা রিপোর্টেও বলা হল, অভিনেতার শরীরে কোনও সন্দেহজনক রাসায়নিক পদার্থ বা বিষাক্ত কিছু পাওয়া যায়নি।


প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতে মৃত্যুর ঘটনায় প্রায় ৩০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিস। এর মধ্যে রয়েছেন সুশান্তের বাড়ির রাঁধুনি, মহম্মদ শেখ, সুশান্তের বাড়ির চাবি যিনি বানিয়েছিলেন সেই শাকিল হুসেন ও তাঁর ভাই,  সুশান্তের রুম মেট, বন্ধু ও ক্রিয়েটিভ ম্যানেজার সিদ্ধার্থ পিঠানি, বিজনেজ ম্যানেজার রাধিকা নিহালানি, পিআর ম্যানেজার কুশল জাভেরি, এছাড়াও রিয়া চক্রবর্তী, সঞ্জনা সংঙ্ঘী, শানু শর্মা, মুকেশ ছাবরা সহ অন্যান্যরা।
 সুশান্তের শরীরে কোনও সন্দেহজনক রাসায়নিক পদার্থ বা বিষাক্ত কিছু পাওয়া যায়নি। বলছে ভিসেরা রিপোর্ট...
 অবশেষে হাতে এল সুশান্ত সিং রাজপুতের ভিসেরা রিপোর্ট। ময়নাতদন্তের পর ভিসেরা রিপোর্টেও সন্দেহজনক কিছু মিলল না। ভিসেরা রিপোর্টে বলা হয়েছে, সুশান্তের শরীরে কোনও সন্দেহজনক রাসায়নিক পদার্থ বা বিষাক্ত কিছু পাওয়া যায়নি।

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যা নিয়ে অনেকেই সন্দেহ প্রকাশ করেন। অভিনেতাকে খুন করা হয়ে থাকতে পারে বলে দাবি করেন বহু মানুষ। যদিও প্রথম থেকেই সুশান্তের মৃত্যু 'আত্মহত্যা' বলেই জানিয়েছিল পুলিস। এরপর গত সপ্তাহে পুলিসের হাতে আসে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট। সেই রিপোর্টে সই করেছিলেন ৫জন চিকিৎসক। সেখানে বলা হয়েছিল, গলায় ফাঁসের কারণে শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে সুশান্তের। তাঁর শরীরে কোনও লড়াইয়ের চিহ্ন বা বাহ্যিক কোনও আঘাতের চিহ্ন ছিল না। তাঁর নখ পরিষ্কার ছিল। রিপোর্ট অনুযায়ী এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই জানায় পুলিস। অন্য কোনও কারণ এর পিছনে নেই। ময়নাতদন্তের পাশাপাশি ভিসেরা সংরক্ষণ করে তা রাসায়নিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। এবার ভিসেরা রিপোর্টেও বলা হল, অভিনেতার শরীরে কোনও সন্দেহজনক রাসায়নিক পদার্থ বা বিষাক্ত কিছু পাওয়া যায়নি।


প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতে মৃত্যুর ঘটনায় প্রায় ৩০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিস। এর মধ্যে রয়েছেন সুশান্তের বাড়ির রাঁধুনি, মহম্মদ শেখ, সুশান্তের বাড়ির চাবি যিনি বানিয়েছিলেন সেই শাকিল হুসেন ও তাঁর ভাই,  সুশান্তের রুম মেট, বন্ধু ও ক্রিয়েটিভ ম্যানেজার সিদ্ধার্থ পিঠানি, বিজনেজ ম্যানেজার রাধিকা নিহালানি, পিআর ম্যানেজার কুশল জাভেরি, এছাড়াও রিয়া চক্রবর্তী, সঞ্জনা সংঙ্ঘী, শানু শর্মা, মুকেশ ছাবরা সহ অন্যান্যরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply