Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » প্রথম জয়ের খোঁজে মুখোমুখি দক্ষিণ আফ্রিকা-উইন্ডিজ




বিশ্বকাপে এবার মুখোমুখি দক্ষিণ আফ্রিকা-উইন্ডিজ হার দিয়ে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যাত্রা শুরু করে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকা। পরাজয়ের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে এসে উভয় দলেরই লক্ষ্য এবারের আসরের প্রথম জয়। সুপার টুয়েলভে গ্রুপ ১-এ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) মুখোমুখি হচ্ছে একে অপরের মুখোমুখি হচ্ছে ক্যারিবীয় ও প্রোটিয়ারা। এদিন দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হবে দিনের প্রথম ম্যাচটি। অপর ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মোকাবেলা করবে ভারতকে উড়িয়ে দিয়ে ফুরফুরে মেজাজে থাকা পাকিস্তান। এদিকে, সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়ে ব্যাটারদের ব্যর্থতায় হার মানতে হয় প্রোটিয়াদের। প্রথমে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ১১৮ রানের স্বল্প পুঁজি পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তারপরও লড়াইয়ের চেষ্টা করেন দলটির বোলাররা। ১১৯ রান টার্গেট দিয়েও অজি ব্যাটারদের ঘাম ঝরিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার বোলার নরকিয়া-রাবাদা-মহারাজ-শামসিরা। যাতে শেষ ওভার পর্যন্ত লড়াই করে তবেই জয়ের নাগাল পায় অস্ট্রেলিয়া। ২ বল বাকী থাকলেও অস্ট্রেলিয়ার সহজ জয়কে কঠিন করে দেন মূলত প্রোটিয়া বোলারাই। যদিও ৫ উইকেটে হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করতে হয় দক্ষিণ আফ্রিকাকে। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া টেম্বা বাভুমা-ডি ককরা। দলের অধিনায়ক বলেন, ‘আমাদের শুরুটা ভালো হয়নি। তবে আশা করছি, দল দ্রুতই ঘুরে দাঁড়াবে। ব্যাটারদের আরও দায়িত্বশীল হতে হবে। উইকেটে টিকে থাকতে হবে, প্রতিপক্ষের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন দল। আগের ম্যাচটি তাদের জন্যও সুখকর নয়। তবে লড়াইয়ে ফিরতে সময় নিবে না ক্যারিবীয়রা।’ টেম্বা বাভুমার কথা মতো তিক্ত হার দিয়েই এবারের বিশ্বকাপ শুরু করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দক্ষিণ আফ্রিকা লড়াই করে হারলেও, প্রথম ম্যাচে ক্যারিবীয়দের পারফরমেন্স ছিলো যাচ্ছেতাই। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে ১৪ দশমিক ২ ওভারে মাত্র ৫৫ রানেই অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে তৃতীয় ও নিজেদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় পড়ে দু’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। টি-টোয়েন্টির ইতিহাসেও এটি ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন রান। এমন লজ্জার ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে দুই অঙ্কের কোটা স্পর্শ করতে পারেন শুধুমাত্র ক্রিস গেইলই। ১৩ বলে সই ১৩ রান করেন দ্য ইউনিভার্সাল বস। আর গেইলদের ৫৬ রানের ওই মামুলী লক্ষ্যটা ৮ দশমিক ২ ওভারেই স্পর্শ করে ফেলে ইংল্যান্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এমন পারফরমেন্সে বাকরুদ্ধ দেশটির কিংবদন্তি ব্যাটার ও ক্রিকেটের বরপুত্র ব্রায়ান লারা। তিনি বলেন, ‘এটি হতাশাজনক এবং খুবই লজ্জার। এটা বর্ণনা করার মত শব্দ আমার জানা নেই। একজন ক্যারিবীয়ান হিসেবে আমি খুবই হতাশ।’ তবে প্রথম ম্যাচের দুঃস্মৃতিকে যত দ্রুত ভুলে নতুন করে বিশ্বকাপে শুরু করতে চান উইন্ডিজ অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড। তিনি বলেন, ‘আমরা সারা বিশ্বে ক্রিকেট খেলেছি এবং আমাদের এই ধরনের পরিস্থিতির সম্মুখীন হওয়ার অভিজ্ঞতা আছে। তবে এই ধরনের স্মৃতিগুলো আমাদের দ্রুত ভুলে যেতে হবে। আমাদের ভুলগুলো খুঁজে বের করতে হবে এবং ঘুরে দাঁড়াতে হবে। আমরা এখন পর্যন্ত আমাদের তিনটি ম্যাচে (দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচসহ) ভালো ব্যাটিং করিনি। আমি মনে করি, এমন পরিস্থিতি আমাদের শিবিরে কোনো প্রভাব ফেলবে না। তবে জয় পেতে হলে একসঙ্গে তিন বিভাগেই জ্বলে উঠতে হবে।’ এদিকে, টি-টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত ১৫ বার মুখোমুখি হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে জয়ের পাল্লাটা অবশ্য ভারী দক্ষিণ আফ্রিকারই। ৯ ম্যাচ জিতেছে তারা। আর ৬টিতে পোলার্ডরা। এ বছর ক্যারিবীয়দের মাটিতে ৫ ম্যাচের সিরিজ ৩-২ ব্যবধানে জিতে ফিরেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। অন্যদিকে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তিন বারের দেখায় দুইবার দক্ষিণ আফ্রিকা ও একবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ জয়ী হয়েছে। একনজরে দুই দলের সম্ভাব্য একাদশ দক্ষিণ আফ্রিকা: কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), টেম্বা বাভুমা (অধিনায়ক), এইডেন মার্করাম, রাসি ফন ডার ডুসেন, ডেভিড মিলার, হেনরিখ ক্ল্যাসেন/রিজা হেন্ড্রিকস, কাগিসো রাবাদা, কেশব মহারাজ, লুঙ্গি এনগিডি, অ্যানরিক নরকিয়া, তাবারাইজ শামসি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ: লেন্ডল সিমন্স, এভিন লুইস, ক্রিস গেইল, শিমরন হেটমায়ার, নিকোলাস পুরান (উইকেটরক্ষক), কাইরন পোলার্ড (অধিনায়ক), আন্দ্রে রাসেল, ডোয়াইন ব্রাভো, আকিল হোসেইন, ওবেদ ম্যাককয় ও রবি রামপল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply