Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মেহেরপুর পৌর নির্বাচনের ৩নং ওয়ার্ডে শেষ পর্যন্ত বিজয়ের হাসি কে হাসবেন ?




পৌর নির্বাচনের ৩নং ওয়ার্ডে শেষ পর্যন্ত বিজয়ের হাসি কে হাসবেন ? আগামী ১৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য মেহেরপুর পৌরসভার নির্বাচনের প্রার্থীরা শেষ মুহূর্তে চলছে জমজমাট প্রচারণা। মেহেরপুর শহরের প্রধান সড়ক সহ পাড়া মহল্লার ওলিতে গলিতে এখন শুধুই চোখে পড়ছে প্রার্থীদের ছবি সম্বলিত পোস্টার।

নির্বাচনের প্রাক্কালে কাউন্সিলর প্রার্থীদের কার কেমন অবস্থান নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদন। এ পর্যায়ে থাকছে মেহেরপুর পৌরসভার-৩ নং ওয়ার্ডের চালচিত্র। মেহেরপুর খাঁ পাড়ার দক্ষিণাংশ, তাঁতিপাড়ার দক্ষিণাংশ, থানাপাড়ার উত্তরাংশ, থানা রোড, থানাপাড়া, মুখার্জি পাড়ার উত্তরাংশ, বেড়পাড়ার দক্ষিণাংশ, সাহাজী পাড়া নিয়ে গঠিত মেহেরপুর পৌরসভার-৩ নং ওয়ার্ড। ৩ নং ওয়ার্ডে রয়েছে ২ হাজার ৯৬৬ জন ভোটার । এ ওয়ার্ডে ২ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলবে। এর মধ্যে তাঁতিপাড়া মহিলা দাখিল মাদ্রাসা দক্ষিণ ভবন এবং একই মাদ্রাসার উত্তর ভবন। ৩ নং ওয়ার্ডের ভোটারদের মন জয় করতে মেহেরপুর পৌরসভার কাউন্সিলর পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে সদ্য সাবেক হওয়া ৩ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর সৈয়দ আবু আব্দুল্লাহ (পানির বোতল) , ৪ নং ওয়ার্ড থেকে উঠে আসা সদ্য সাবেক হওয়া কাউন্সিলর শাকিল রাব্বি ইভান (ডালিম) , ইনসান আলী(টেবিল ল্যাম্প) জাহাঙ্গীর আলম (উটপাখি) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৩ নং ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থী হলেও এই ওয়ার্ডে মূলত সৈয়দ আবু আব্দুল্লাহ,ইনসান আলী এবং জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে ত্রিমুখী লড়াই হবে। ৪ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলে এমটিই জানা গেছে। সৈয়দ আবু আব্দুল্লাহ ৫ পাঁচ বছর কাউন্সিলর থাকাকালীন সময়ে ভোটারদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। অপরদিকে ইনসান আলী এবং জাহাঙ্গীর আলম বেশ কিছুদিন যাবৎ ভোটারদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা শুরু করেন। এই ওয়ার্ডে বাপ্পি, ইনসান কিংবা জাহাঙ্গীরের মধ্যে থেকেই যে কেউ নির্বাচিত হতে পারেন। অপরদিকে শাকিল রাব্বি ইভান গত নির্বাচনে ৪ নং ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত হলেও এবার তিনি ঠিকানা পরিবর্তন করে ৩ নং ওয়ার্ড থেকে প্রার্থী হয়েছেন। এই ওয়ার্ডের শাকিল খানের নিকটাত্মীয় সংখ্যা বেশি থাকার পরও তিনি এবার নির্বাচনে খুব একটা সুবিধা করতে পারবেন বলে মনে হচ্ছে না। শেষ পর্যন্ত বিজয়ের হাসি কে হাসবে সৈয়দ আবু আব্দুল্লাহ,ইনসান আলী এবং জাহাঙ্গীর আলম?






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply