Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » আইসিজের রায় নিয়ে যা বললো দক্ষিণ আফ্রিকা




ইসরাইলের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতের রায়কে স্বাগত জানিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আইসিজেকে ধন্যবাদ জানিয়ে তাদের এই রায়কে আইনের শাসনের ক্ষেত্রে ‘গুরুত্বপূর্ণ জয়’ বলে অভিহিত করেছেন দেশটির কর্মকর্তারা। গাজা গণহত্যা মামলায় আইসিজের শুনানিতে দক্ষিণ আফ্রিকার নেতৃত্ব দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী নালেদি পান্দর। ছবি: সংগৃহীত গাজা গণহত্যা মামলায় আইসিজের শুনানিতে দক্ষিণ আফ্রিকার নেতৃত্ব দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী নালেদি পান্দর। ছবি: সংগৃহীত জাতিসংঘের শীর্ষ আদালত গাজায় সম্ভাব্য গণহত্যা প্রতিরোধে জরুরি পদক্ষেপ নিতে ইসরাইলকে নির্দেশ দেয়ার পর দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা ও ক্ষমতাসীন দল আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট রামাফোসা এক বিবৃতিতে আইসিজের রায়ের প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রত্যাশা, ইসরাইল আন্তর্জাতিক আদালতের রায় মেনে পদক্ষেপ নেবে। তিনি আরও বলেন, আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে, আইসিজের রায় অনুসরণ করে যুদ্ধবিরতির বিষয়ে আরও সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়া উচিত। হুঁশিয়ারির সুরে রামাফোসা বলেন, কোথাও অন্য মানুষের ওপর অপরাধ সংঘটিত হবে আর দক্ষিণ আফ্রিকানরা নিষ্ক্রিয় পথচারীর মতো দাঁড়িয়ে থাকবে সেটা হবে না। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী নালেদি পান্দর বলেছেন, ইসরাইল যদি আন্তর্জাতিক বিচার আদালতের আদেশের ব্যাপারে সম্মান দেখাতে চায়, তাহলে তাকে অবশ্যই গাজা উপত্যকায় হামলা বন্ধ করতে হবে। আরও পড়ুন: গাজায় গণহত্যা বন্ধের নির্দেশ আইসিজে’র গাজা গণহত্যা মামলায় আইসিজের শুনানিতে দক্ষিণ আফ্রিকার নেতৃত্ব দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী নালেদি পান্দর। রায় প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, আদালতের রায়ের মধ্যে যুদ্ধবিরতির কথা না থাকলেও রায়ের পূর্ণ বাস্তবায়ন যুদ্ধবিরতির দিকেই যাবে। নেদারল্যান্ডসের হেগে আইসিজের রায় ঘোষণা শেষে মন্ত্রী নালেদি পান্দর বলেন, যুদ্ধবিরতি ছাড়া গাজায় খাবার ও পানি কিভাবে পৌঁছাবে। অবশ্যই যুদ্ধবিরতি হতে হবে।’ গাজায় ‘গণহত্যামূলক কর্মকাণ্ডের’ অভিযোগ এনে গত ডিসেম্বরে আইসিজেতে মামলাটি করে দক্ষিণ আফ্রিকা। চলতি মাসের শুরুর দিকে (১১ ও ১২ জানুয়ারি) দুই দিনের শুনানি হয়। আরও পড়ুন: যুদ্ধ চলবে:নেতানিয়াহু শুনানিতে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়, আদালত যেন জরুরি ভিত্তিতে ইসরাইলকে গাজায় সামরিক অভিযান বন্ধের নির্দেশ দেন। দুই সপ্তাহ পর শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) প্রাথমিক আদেশ দিয়েছেন আদালত। আইসিজের বিচারক প্যানেলের ১৭ জনের মধ্যে ১৫ জনই রায়ের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। তবে রায়ে স্পষ্ট করে যুদ্ধবিরতি বা অভিযান বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়নি। যদিও রায়ে গণহত্যা রোধে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নেয়া ও মানবিক সহায়তা অব্যাহত রাখতে ইসরাইলের প্রতি নির্দেশ দেয়া হয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply